অন্যায় করলে ছাড় দেয়া হবে না : আইনমন্ত্রী

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, অন্যায় করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।
ব্যাংকের ঋণ খেলাপী এবং আর্থিক অনিয়মের ব্যাপারে অনেক লেখালেখি হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এ ব্যাপারে সরকারের অবস্থান অত্যন্ত পরিষ্কার। যারা দোষী তাদেরকে শাস্তি দেওয়া হবে। কারণ বাংলাদেশে কেউই আইনের উর্ধ্বে নয়। আর যারা নির্দোষ তাদেরকে হয়রানি করা হবেনা। এটাই হচ্ছে সরকারের অবস্থান।’
আইনমন্ত্রী বলেন, দুর্নীতি দমন কমিশন এবং আইন প্রয়োগকারী সংস্থাও এ ব্যাপারে সচেতন রয়েছে।
আনিসুল হক আজ রোববার ঢাকায় বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এবং সমপর্যায়ের বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাদের ১৩৯তম রিফ্রেশার কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।
এরআগে ওই অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, সংবিধান ও আইন অনুযায়ী প্রত্যেক বিচারকই স্বাধীন। তাই কোন বিচারক সৎ, দক্ষ, নিরপেক্ষ ও আন্তরিক হলে তার ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে কোন ভয় থাকবে না।
প্রশিক্ষণার্থী বিচারকদের উদ্দেশ্যে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা জানেন সরকার দুর্নীতির ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। সেজন্য দুর্নীতি সংক্রান্ত মামলার বিচারকালে আপনাদেরকে অত্যন্ত সজাগ থাকতে হবে। সরকার এ ব্যাপারে আপনাদেরকে সব রকম সহায়তা দিবে।’
সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, উচ্চ আদালতে বিচারক নিয়োগের বিষয়ে আইন প্রণয়ন করার প্রক্রিয়া চলছে। এসময় তিনি বলেন, ‘আমি আগেও বলেছি, এখনও বলছি চলতি বছরের শেষ নাগাদ এই আইন আপনারা পেয়ে যাবেন’।
বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক বিচারপতি খোন্দকার মূসা খালেদের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক এবং বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের পরিচালক ড. শেখ গোলাম মাহবুবও বক্তৃতা করেন।